ZamzamITPostAd

বিশ্বের বৃহত্তম ফুলের নাম কি - জানা অজানা মজার তথ্য

ভূমিকা

আসসালামু আলাইকুম। প্রিয় পাঠক জমজম আইটির পক্ষ থেকে আপনাকে স্বাগতম। আপনি অনেক খোঁজাখুজির পর নিশ্চয়ই বিশ্বের বৃহত্তম ফুলের নাম কি বা জানা অজানা মজার তথ্য জানার জন্যই আমাদের এই সাইটটিতে এসেছেন।
বিশ্বের বৃহত্তম ফুলের নাম কি - জানা অজানা মজার তথ্য
হ্যাঁ আজকে আমি বিশ্বের বৃহত্তম ফুলের নাম কি বা জানা অজানা মজার তথ্য নিয়ে আলোচনা করব। এই লেখার মূল বিষয়বস্তু সম্পর্কে জানতে পুরো আর্টিকেলটি পড়ে ফেলুন।

বিশ্বের বৃহত্তম ফুলের নাম কি

বিশ্বের বৃহত্তম ফুলের নাম রাফলেসিয়া। এটি Rafflesia arnoldii নামেও পরিচিত। এটি একটি পরজীবী উদ্ভিদ যা দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার বনভূমিতে পাওয়া যায়। এই ফুলের ব্যাস প্রায় ৩ ফুট (৯১ সেমি) এবং ওজন প্রায় ২০ পাউন্ড (৯ কেজি) হতে পারে। রাফলেসিয়া ফুলের রঙ লালচে-বাদামি এবং এটি পচা মাংসের মতো দুর্গন্ধ ছড়ায়। এই দুর্গন্ধে আকৃষ্ট হয়ে মাছি এবং অন্যান্য পতঙ্গরা এই ফুলের পরাগায়নে সাহায্য করে।

রাফলেসিয়া ফুল খুবই বিরল এবং বিলুপ্তির পথে রয়েছে। এটি একটি সংরক্ষিত উদ্ভিদ। রাফলেসিয়া ফুলের অন্যান্য প্রজাতিগুলিও রয়েছে। এই প্রজাতিগুলির ফুলের আকার রাফলেসিয়া arnoldii-এর চেয়ে ছোট।

বিশ্বের ক্ষুদ্রতম ফুলের নাম কি

বিশ্বের ক্ষুদ্রতম ফুলের নাম ওয়ার্টনিয়া অ্যালিস। এটি Wolffia globosa নামেও পরিচিত। এটি একটি জলজ উদ্ভিদ যা দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার জলাশয়ে পাওয়া যায়। এই ফুলের ব্যাস মাত্র ১ মিলিমিটার (০.০৪ ইঞ্চি)। ওয়ার্টনিয়া অ্যালিস ফুলের রঙ সবুজ এবং এটি স্বচ্ছ পাতায় আবৃত থাকে। এই ফুলের পরাগায়ন হয় পানির মাধ্যমে।

ওয়ার্টনিয়া অ্যালিস ফুল খুবই বিরল এবং বিলুপ্তির পথে রয়েছে। এটি একটি সংরক্ষিত উদ্ভিদ।

ওয়ার্টনিয়া অ্যালিস ফুলের অন্যান্য প্রজাতিগুলিও রয়েছে। এই প্রজাতিগুলির ফুলের আকার ওয়ার্টনিয়া অ্যালিস-এর চেয়েও ছোট।

বিশ্বের সুন্দর ফুলের নাম কি

বিশ্বের সুন্দর ফুলের নাম ওরকিড। এই ফুলটি অসংখ্য আকর্ষণীয় রঙে ও আকারে উপস্থিত থাকে। এর অনেক প্রজাতি রয়েছে এবং এদের প্রতিটি একটি নির্দিষ্ট রঙ ও আকার সঙ্গে বিভিন্ন সুন্দর উপাদান উপহার করে। ওরকিড ফুল।

ওরকিড ফুলের আকার খুবই ছোট থেকে শুরু করে অনেক বড় হতে পারে। এর রঙও খুবই বৈচিত্র্যময়। ওরকিড ফুলের মধ্যে লাল, গোলাপি, সাদা, হলুদ, নীল, সবুজ, বেগুনি, এমনকি কালো রঙের ফুলও পাওয়া যায়। ওরকিড ফুলের অনেক প্রজাতির পাপড়ি খুবই সুন্দরভাবে জড়িয়ে থাকে। এছাড়াও, অনেক প্রজাতির ওরকিড ফুলের মধ্যে সুগন্ধও থাকে।

ওরকিড ফুলের সৌন্দর্যের জন্য এটি বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় ফুলগুলির মধ্যে একটি। ওরকিড ফুল প্রায় সব দেশেই পাওয়া যায়। ওরকিড ফুলকে ভালোবাসে না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া দুষ্কর।

Ms powerpoint কোন ধরনের সফটওয়্যার

মাইক্রোসফট পাওয়ারপয়েন্ট একটি অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যার। এটি একটি উপস্থাপনা সফ্টওয়্যার যা ব্যবহারকারীদের স্লাইড শো তৈরি করতে দেয়। পাওয়ারপয়েন্টের মাধ্যমে ব্যবহারকারীরা পাঠ্য, চিত্র, গ্রাফিক, অ্যানিমেশন এবং অন্যান্য উপাদান ব্যবহার করে আকর্ষণীয় এবং তথ্যপূর্ণ উপস্থাপনা তৈরি করতে পারে।

পাওয়ারপয়েন্ট একটি গ্রাফিক্স প্যাকেজ প্রোগ্রাম / প্রেজেন্টেশন হিসাবেও পরিচিত। এটি শিক্ষা, প্রশিক্ষণ, ব্যবসা এবং অন্যান্য উদ্দেশ্যে উপস্থাপনা তৈরি করতে ব্যবহৃত হয়।

Edu.bd ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন

.edu.bd হল বাংলাদেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলির জন্য নির্ধারিত একটি কান্ট্রি কোড টপ-লেভেল ডোমেইন (ccTLD)। এই ডোমেইন শুধুমাত্র বাংলাদেশী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে সীমাবদ্ধ। অন্য কেউ ইচ্ছে করলেই .edu.bd ডোমেইন নিতে পারবে না।

edu.bd ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করার জন্য প্রয়োজনীয় নথিপত্র
  • প্রতিষ্ঠানের নাম
  •  প্রধানের মোবাইল নম্বর
  • প্রতিষ্ঠানের প্রধানের ইমেইল ঠিকানা
  •  স্বীকৃতি পত্রের সত্যায়িত কপি
  • প্রতিষ্ঠানের প্রধানের জাতীয় পরিচয় পত্রের সত্যায়িত কপি
  • edu.bd ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করার জন্য প্রয়োজনীয় ধাপসমূহ
  • প্রথমে আপনাকে বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন্স কোম্পানি লিমিটেডের (বিটিসিএল) ডোমেইন পোর্টালে যেতে হবে।
  • সেখানে "নতুন রেজিস্ট্রেশন" অপশনে ক্লিক করুন।
  • প্রয়োজনীয় তথ্য এবং নথিপত্র আপলোড করুন।
  • রেজিস্ট্রেশন ফি প্রদান করুন।
আপনার ডোমেইনটি সফলভাবে রেজিস্ট্রেশন হয়ে গেলে, আপনি একটি ইমেল পাবেন।
edu.bd ডোমেইন রেজিস্ট্রেশনের খরচ

edu.bd ডোমেইন রেজিস্ট্রেশনের খরচ হল প্রতি বছর ১,০০০ টাকা।

edu.bd ডোমেইন রেজিস্ট্রেশনের সুবিধা

  • edu.bd ডোমেইন আপনার প্রতিষ্ঠানের বিশ্বাসযোগ্যতা বাড়াতে সাহায্য করে।
  • এটি আপনার প্রতিষ্ঠানকে অনলাইনে আরও দৃশ্যমান করে তোলে।
  • এটি আপনার প্রতিষ্ঠানের জন্য একটি অনন্য এবং পরিচিত পরিচয় তৈরি করে।
  • edu.bd ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করার জন্য কিছু টিপস।
  • আপনার প্রতিষ্ঠানের জন্য একটি আকর্ষণীয় এবং স্মরণীয় ডোমেইন নাম নির্বাচন করুন।
  • ডোমেইন নামের সাথে আপনার প্রতিষ্ঠানের নামের মিল থাকলে ভালো হয়।
  • আপনার ডোমেইন নামটি সংক্ষিপ্ত এবং সহজে মনে রাখার মতো হতে হবে।
edu.bd ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন আপনার প্রতিষ্ঠানের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ। এটি আপনার প্রতিষ্ঠানকে অনলাইনে আরও দৃশ্যমান এবং বিশ্বাসযোগ্য করে তুলতে সাহায্য করবে।

ভ্যাটিকান সিটির আয়তন কত

ভ্যাটিকান সিটির আয়তন মাত্র ০.৪৪ বর্গকিলোমিটার। এটি ইতালির রোম শহরের মধ্যস্থলে প্রাচীর বেষ্টিত একটি এলাকা। ভ্যাটিকান সিটি বিশ্বের ক্ষুদ্রতম সার্বভৌম রাষ্ট্র।

ভ্যাটিকান সিটির জনসংখ্যা প্রায় ৮০০ জন। এর মধ্যে পোপ, কার্ডিনাল, পুরোহিত, কর্মচারী এবং পর্যটকদের অন্তর্ভুক্ত। ভ্যাটিকান সিটির সরকারী ভাষা ইতালীয়।

ভ্যাটিকান সিটি রোমান ক্যাথলিক চার্চের বিশ্ব সদর দপ্তর। এটিতে অনেক গুরুত্বপূর্ণ ঐতিহাসিক এবং ধর্মীয় স্থাপনা রয়েছে, যার মধ্যে রয়েছে সেন্ট পিটার্স ব্যাসিলিকা, ভ্যাটিকান জাদুঘর এবং সেন্ট পিটারস স্কয়ার।

চিলির রাজধানীর নাম কি

চিলির রাজধানীর নাম সান্তিয়াগো। এটি চিলির বৃহত্তম এবং সবচেয়ে জনবহুল শহর। এটি চিলির কেন্দ্রীয় উপত্যকায় অবস্থিত, এবং এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ অর্থনৈতিক, সাংস্কৃতিক এবং রাজনৈতিক কেন্দ্র।

সান্তিয়াগো একটি আধুনিক শহর যা অনেক ঐতিহাসিক ও সাংস্কৃতিক স্থাপনার আবাসস্থল। এটিতে অনেক জাদুঘর, গ্যালারি, থিয়েটার এবং অন্যান্য সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান রয়েছে। সান্তিয়াগোতে অনেক পার্ক এবং বাগানও রয়েছে, যা এটিকে একটি মনোরম শহর করে তোলে।

সান্তিয়াগো একটি জনপ্রিয় পর্যটন গন্তব্য। এটিতে অনেক কিছু দেখার এবং করার আছে, এবং এটি একটি অনন্য এবং আকর্ষণীয় শহর।

আরো কিছু জানা অজানা মজার তথ্য

  • হিমবাহ হচ্ছে তুষারের নদী। যা হালকা বরফ এবং গ্রীষ্মকালেও খুব বেশি গলে যায় না। তাই তুষারের নদী চিরকাল টিকে থাকে। এই হিমবাহ বিশ্বের প্রায় ৬৯ ভাগ সুপেয় পানি ধরে রেখেছে।
  • পৃথিবীতে বাতাস প্রবাহিত হয় নির্দিষ্ট গতিতে। যার মধ্যে সবচেয়ে দ্রুত প্রবাহিত বাতাসের গতি ২৫৩ মাইল।
  • আমেরিকায় অবস্থিত রয়েছে হাওয়াই রাজ্য। ১৯৫৯ সালে যুক্তরাষ্ট্রের ৫০তম অঙ্গরাজ্য হিসেবে হাওয়াই  অন্তর্ভুক্ত হয়। এই রাজ্য থেকে বিশ্বের সবচেয়ে চমৎকার রংধনু দেখা যায়।
  • গ্রীনল্যান্ডে বরফের ১.৪ কিলোমিটার নিচে জীবাশ্ম আকারে বৃক্ষরাজি আছে।
  • পৃথিবীর বুকে জীববৈচিত্র্যের অন্যতম স্থান সমুদ্রের তলদেশ। ২০২০ সালে সমুদ্র তলদেশে প্রায় ৪০০ প্রজাতির নতুন জলজ প্রাণীর সন্ধান পাওয়া গেছে।
  • হিমালয় পর্বতমালা এশিয়ার এমন একটি পর্বতমালা যা তিব্বতীয় মালভূমি থেকে ভারতীয় উপমহাদেশকে পৃথক করেছে। আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে দেখা যায়, বর্তমানে হিমালয়ের উচ্চতা ২৯০৩১.৬৯ ফিট। ১৮৫৬ সালের এর উচ্চতা ছিল ছিল ২৯০০২ ফিট।
  • বিশ্বে জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে বিভিন্ন গবেষণা হয়। এক গবেষণায় দেখা গেছে, জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে বিভিন্ন প্রজাতির ফুলের রঙও বদলে গেছে।
  • বিশ্বে প্রতি সেকেন্ডে চারটি শিশুর জন্ম হয়।
  • বিশ্বের বিভিন্ন দেশে জনপ্রিয় পানীয়ের মধ্যে একটি হচ্ছে কোকাকোলা। তবে আপনি জানেন কি, উত্তর কোরিয়া ও কিউবা এই দুই দেশে কোকা কোলা বিক্রয় হয় না।
  • ক্যালিফোর্নিয়া মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একটি অঙ্গরাজ্য। ১৮৫০ সালে যুক্তরাষ্ট্রের ৩১তম অঙ্গরাজ্য হিসেবে এটি অন্তর্ভুক্ত হয়। জনসংখ্যায় ক্যালিফোর্নিয়া যুক্তরাষ্ট্রের বৃহত্তম অঙ্গরাজ্য। আয়তনে এটি যুক্তরাষ্ট্রের তৃতীয় অঙ্গরাজ্য। তবে আপনি জানেন কি, বিশ্বের সব মানুষ কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে দাড়ালে ক্যলিফোর্নিয়ায় জায়গা হয়ে যাবে।
  • অন্যান্য সময়ের তুলনায় বর্তমানে বিশ্বে জমজ সন্তান জন্ম দেওয়ার মাত্রা বেড়েছে।
  • ঝাল পরিমাপক যন্ত্র স্কোভাইল স্কেলের তথ্য অনুযায়ী, ড্রাগন ব্রেথ মরিচে ঝালের মাত্রা ২.৪৮ মিলিয়ন পানির ফোটার সমপরিমাণ। এই মরিচ এতটা ঝাল, যা মৃত্যুর কারণও হতে পারে।
  • বিশ্বের অন্যান্য দেশের তুলনায় ইন্দোনেশিয়ার জনগণ সবচেয়ে খাটো আকৃতির হয়ে থাকে।
  • জলবায়ু পরিবর্তন সংক্রান্ত প্যারিস চুক্তিতে একদিনে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক দেশ স্বাক্ষর করেছে।
  • অ্যান্টার্কটিকায় এখন পর্যন্ত রেকর্ড করা সবচেয়ে ঠান্ডা তাপমাত্রা ছিল -১৪৪ ডিগ্রি ফারেনহাইট।

উপসংহার:

প্রিয় পাঠক আজ বিশ্বের বৃহত্তম ফুলের নাম কি - জানা অজানা মজার তথ্য নিয়ে আলোচনা করলাম। আগামীতে অন্য কোন টপিক নিয়ে হাজির হবো। পোষ্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে শেয়ার করতে ভুলবেন না।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

জমজম আইটিরনীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url